রবিবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>

আখাউড়ায় আশ্রয় প্রকল্পের ঘর নির্মাণ কাজের অগ্রগতি নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ২৪ এপ্রিল ২০২২ | 177 বার পঠিত | প্রিন্ট

আখাউড়ায় আশ্রয় প্রকল্পের ঘর নির্মাণ কাজের অগ্রগতি নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়

মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় সারা দেশের ন্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদেরকে ভূমি ও ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার।

আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় আখাউড়া উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় মোট ৬৫৩ জনকে প্রধানন্ত্রীর উপহার লাল-সবুজের ঘর দেওয়া হবে। ইতিমধ্যে ১ম ধাপে ৪৫টি এবং ২য় ধাপে ৫০টি মোট ৯৫টি ঘর উপকারভোগীদের মাঝে হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকী ঘরগুলোর নির্মাণ কাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে।


আগামী ৩০ শে জুনের মধ্যে সবগুলো ঘরের নির্মাণ কাজ শেষ করে উপকারভোগীদের মাঝে হস্তান্তর করার লক্ষ্যে কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন। ২৬ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারা দেশের সাথে আখাউড়া উপজেলায় ৪৩টি পরিবারকে ঈদ উপহার হিসেবে ভূমি ও ঘর প্রদান করবেন।

আশ্রয়ণ প্রকল্পের নির্মাণ কাজের সর্বশেষ তথ্য জানাতে রোববার দুপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় ও প্রেস ব্রিফিং করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা আক্তার। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে এ মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।


ইউএনও রুমানা আক্তার জানান, আখাউড়া উপজেলায় মোট ৬৫৩টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হবে। ২ শতক জমিতে সেমি পাকা ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রতিটি ঘরে ২টি কক্ষ, ১টি বাড়ান্দা, ১টি কিচেন ও বাথরুম রয়েছে। উপজেলার উত্তর ইউপির রাজাপুর, চাঁনপুর, দক্ষিণ ইউপির সাতপাড়া, কেন্দুয়াই, কুড়িপাইকা, মোগড়া ইউপির নীলাখাদ, খলাপাড়া, চরনারায়নপুর, মনিয়ন্দ ইউপি’র নোয়া মোড়া, ঘাগুটিয়া, রাজমঙ্গলপুর, কর্মমঠ বাজার, ধরখারের রুটি, নোয়াপাড়া, বনগজ ও পৌর শহরের দেবগ্রাম এবং তারাগন এলাকায় ঘরগুলো নির্মাণ করা হচ্ছে।

এরমধ্যে উত্তর ইউনিয়নে ২৯জন, দক্ষিণ ইউনিয়নে ২৩ জন, মোগড়া ইউনিয়নে ৪৬ জন, মনিয়ন্দ ইউনিয়নে ৮৬ জন, ধরখার ইউনিয়নে ৬৮জন এবং আখাউড়া পৌরসভায় ৩৫৪ জনকে ঘর দেওয়া হবে। ইতিমধ্যে ৯৫টি ঘর নির্মাণ শেষ করে উপকারভোগীদের হস্তান্তর করা হয়েছে। সরকারি খাস ভূমিতে এসব ঘর নির্মাণ করার কথা থাকলেও এ উপজেলায় চাহিদা মোতাবেক খাস জমি না পাওয়ায় জমি ক্রয় করে ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। এজন্য ৮ কোটি ৫৯ লাখ ২২ হাজার ১৩৮ টাকায় ৯ একর ১৮ শতাংশ ৩২ পয়েন্ট জমি ক্রয় করা হয়েছে। যেখানে প্রায় ৪০০ ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর এ স্বপ্ন বাস্তবায়নের কারিগর স্থানীয় সংসদ সদস্য আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক এমপি।


ইউএনও রোমানা আক্তার আরও বলেন, আগামী ২৬ এপ্রিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারা দেশে গৃহহীনদের মাঝে ঈদ উপহার হিসেবে ঘর প্রদান করবেন। ওই দিন আখাউড়া উপজেলায় ৪৩টি পরিবারকে ভূমি ও ঘর প্রদান করা হবে।
তিনি আরও বলেন, প্রথম ধাপে প্রতিটি ঘরের নির্মাণ ব্যয় ধরা ছিল ছিল ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা। দ্বিতীয় ধাপে ৫০টি ঘর নির্মাণ ব্যয় ধরা হয় ১ লক্ষ ৯১ হাজার টাকা। বর্তমানে নির্মাণ ব্যয় বাড়িয়ে প্রতিটি ঘরের জন্য ২ লক্ষ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা করা হয়েছে।প্রেস ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সাইফুল ইসলাম।

Facebook Comments Box

Posted ৪:৪৬ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২৪ এপ্রিল ২০২২

Akhaurar Alo 24 |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
মোঃ সাইফুল ইসলাম সম্পাদক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

আখাউড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

E-mail: info@akhauraralo24.com