রবিবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>

আখাউড়ায় কলেজের ছিনিয়ে নেওয়া চাবি উদ্ধার করলেন ইউএনও

ডেস্ক রিপোর্ট   |   বুধবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | 702 বার পঠিত | প্রিন্ট

আখাউড়ায় কলেজের ছিনিয়ে নেওয়া চাবি উদ্ধার করলেন ইউএনও

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় শহীদ স্মৃতি সরকারী কলেজের সার্টিফিকেট কক্ষের ছিনিয়ে নেওয়া চাবি উদ্ধার করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে কলেজের অধ্যাপক ও আওয়ামীলীগ নেতা হুমায়ুুন কবির মোল্লা জোর করে অধ্যক্ষের নিকট থেকে চাবিটি ছিনিয়ে নেন।এছাড়াও হুমায়ুন কবির মোল্লার বিরুদ্ধে সহকর্মীদের সাথে খারাপ আচরণ করার অভিযোগ উঠেছে।


ভাইস প্রিন্সিপাল না হয়েও তিনি জোর করে কলেজের ভাইস প্রিন্সিপালের কক্ষ দখল করে ব্যক্তিগত অফিস হিসেবে ব্যবহার করছেন।তিনি স্থানীয় প্রভাবশালী হওয়ায় তার ভয়ে অন্যান্য শিক্ষকরা তটস্থ হয়ে থাকেন।এক প্রভাষককে হেনস্থা করায় হুমায়ুন কবির মোল্লার বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই প্রভাষক।

বুধবার বিকালে চাবিটি উদ্ধার করেন ইএনও অফিসার রুমানা আক্তার।কলেজের কয়েকজন অধ্যাপকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ছাত্রছাত্রীদের সার্টিফিকেট, মার্কশীট, বেতন আদায়ের রসিদ বই, নগদ টাকাসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র একটি কক্ষে রাখা হয়।মঙ্গলবার দুপুরে অধ্যাপক হুমায়ুন কবির মোল্লা কলেজের অধ্যক্ষ আবু জামালকে ওই কক্ষের চাবি দিতে বলেন।কিন্তু অধ্যক্ষ চাবি দিতে রাজি না হওয়ায় তিনি অধ্যক্ষকে জোর করে চাবি ছিনিয়ে নিয়ে যান।অধ্যক্ষকে গালমন্দ করে মারতে উদ্যত হন। এসময় কয়েকজক অধ্যাপক এগিয়ে এসে অধ্যক্ষকে রক্ষা করেন।


পরে অধ্যক্ষ আবু জামাল বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও কলেজ গর্ভর্নিং বডির সভাপতি ইউএনও রুমানা আক্তারকে জানান। ইউএনও রুমানা আক্তার বুধবার দুপুরে অধ্যাপক হুমায়ুন কবির মোল্লাকে ডেকে নিয়ে চাবি ফেরত দিতে বলেন।পরে তিনি চাবি ফেরত দেন।

এ ব্যপারে কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক ও নির্বাচিত শিক্ষক প্রতিনিধি ফয়জুন্নেসা লিজা বলেন, কলেজে জাতীয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে আমি মঞ্চ বসায় তিনি (হুমায়ুন কবির) আমার সাথে খারাপ আচরণ করেন এবং আমাকে জোর পূর্বক মঞ্চ থেকে নামিয়ে দেন।আমি প্রতিবাদ করায় তিনি এলাকা থেকে লোকজন এনে আমাকে নাজেহাল করে। এ বিষয়ে আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।


অভিযুক্ত হুমায়ুন কবির মোল্লা জোর করে চাবি নেওয়ার কথা অস্বীকার করে স্বাক্ষাতে বিস্তারিত জানাবেন বলে জানান।

কলেজের অধ্যক্ষ মো: আবু জামাল বলেন, তিনি জোর করে আমার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট রাখার কক্ষের চাবি ছিনিয়ে নেন এবং আমার সাথে খারাপ আচরণ করেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কলেজ গর্ভর্নিং বডির সভাপতি,ইউএনও রুমানা আক্তার বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি তাকে চাবি ফেরত দিতে বলি।পরে তিনি চাবি ফেরত দেন।বিষয়টি খুবই দু:খজনক।

Facebook Comments Box

Posted ১১:৪৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১

Akhaurar Alo 24 |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
মোঃ সাইফুল ইসলাম সম্পাদক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

আখাউড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

E-mail: info@akhauraralo24.com