রবিবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>

মালয়েশিয়ায় ১৫ তম জেনারেলের ইলেকশন ২০২২ জুলাই 

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি:   |   শনিবার, ১৪ আগস্ট ২০২১ | 360 বার পঠিত | প্রিন্ট

মালয়েশিয়ায় ১৫ তম জেনারেলের ইলেকশন ২০২২ জুলাই 

বর্তমানে কোভিড-১৯ মহামারী পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে আগামী বছরের জুলাইয়ের শেষের দিকে ১৫ তম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটা হবে তার প্রতিশ্রুতি এবং নতুন সরকার নির্বাচন করার জন্য জনগণের ম্যান্ডেট ফিরিয়ে দেওয়া সঠিক কাজ।আমি ক্ষমতাকে আঁকড়ে থাকতে চাই না। বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে এই অবস্থায় নির্বাচন উপযুক্ত সময় নয়। যে সময় উপযুক্ত হবে নতুন সরকার নির্বাচন করার জন্য জনগণের কাছে ম্যান্ডেট ফিরিয়ে দেওয়া হবে।


 

বর্তমানে দৈনিক ২০/২১ হাজারের বেশি কোভিড-১৯ আক্রান্ত হচ্ছে।এই মুহূর্তে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে কোভিড-১৯ আরো মহামারী আকার ধারণ করবে। নির্বাচন নয় আগে জনগণের সুরক্ষার দরকার। আমি আশাবাদী টিকা কার্যক্রম সফল ভাবে সমাপ্তি করতে পারলে ২০২২ সালে প্রথম ভাগে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আসবে ইনশাআল্লাহ।এই মহামারী পরিস্থিতি বিবেচনা ও পর্যালোচনার উপর নির্ভর করে আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি যে আগামী বছরের জুলাইয়ের শেষের দিকে ১৫ তম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মহিউদ্দিন ইয়াছিন গতকাল স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় উদ্দেশ্যে বিশেষ ভাষণে স্থানীয় টেলিভিশন এ কথা বলেন।


 

তিনি বলেন, একজন মানুষ হিসেবে আমি ভুল ত্রুটি ছাড়া নই, বিশেষ করে যখন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে হয়। এমন সময়ে যখন আমার দেশের জনগণ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বৈশ্বিক মহামারীর সঙ্গে লড়াই করছে। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশকে সংকট থেকে বের করে আনার দায়িত্ব পালনে সক্ষম করতে মন্ত্রিসভা, রাজ্য সরকারের নেতৃবৃন্দ, সরকারী কর্মকর্তা, ফ্রন্টলাইনার এবং জনগণের সহযোগিতা ও সমর্থন প্রয়োজন।


 

পেরিকাতন ন্যাশনাল (পিএন) সরকারে আমার সহযোগী সংসদ সদস্যদের সমর্থন কম গুরুত্বপূর্ণ নয়, যার জন্য আমি আজ এখানে আছি। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমার বৈধতা এমপিদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সমর্থনের দ্বারা নির্ধারিত হয়।দুর্ভাগ্যবশত, যখন আমার সহকর্মীরা এবং মন্ত্রিসভায় আমি মহামারীটি পরিচালনা করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করছি, তখন কয়েকজন এমপি আমার জন্য তাদের সমর্থন প্রত্যাহার করেছেন। এটি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমার বৈধতা এবং ক্ষমতাসীন সরকার হিসেবে পেরিকাতান ন্যাশনাল এর অবস্থান নিয়ে সন্দেহ জাগিয়েছে।

 

মহিউদ্দিন ইয়াছিন বলেন, দেওয়ান রকিয়াত এবং দেওয়ান নেগারা থেকে দুই তৃতীয়াংশের বেশি দ্বিপক্ষীয় সমর্থন পেলে তিনি সংসদে দুটি বিল পেশ করবেন। সংবিধান সংশোধন বিল তিনি একটি প্রধানমন্ত্রীর জন্য দুই মেয়াদের সীমা পরিবর্তন এবং পার্টি বিরোধী হপিং বিল – সংসদে পেশ করা হবে।সরকার ও বিরোধী দলের সাংসদের সংখ্যা আরো সুষম বণ্টন নিশ্চিত করার মাধ্যমে ” সংসদে চেক অ্যান্ড ব্যালেন্সের” ভুমিকার স্বীকৃতিস্বরুপ – নির্বাচিত কমিটির ৫০ শতাংশ ক্ষমতাসীন জোটের এমপিরা প্রতিনিধিত্ব করবেন। বাকী ৫০ শতাংশ বিরোধী দলের সাংসদরা প্রতিনিধিত্ব করবে।

মুহিউদ্দিন বলেন, ফেডারেল সংবিধান অনুসারে, তার কাছে দুটি বিকল্প ছিল, যথা পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার জন্য ইয়াং ডি-পার্টুয়ান আগং ( রাজা ) -এর সম্মতি চাওয়া এবং তারপর নির্বাচন করা, অথবা পদত্যাগ করা।

Facebook Comments Box

Posted ৯:৫১ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১৪ আগস্ট ২০২১

Akhaurar Alo 24 |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আজ মহান মে দিবস
আজ মহান মে দিবস

(515 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
মোঃ সাইফুল ইসলাম সম্পাদক
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

আখাউড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

E-mail: info@akhauraralo24.com